`ইয়া আফরোজা ইয়া আফরোজা’ প্রসঙ্গ

লিখেছেন নেছারুদ্দীন রুম্মান ১. ইয়া আফরোজা-য় আমার দেখা মতে (আমি আলো-আঁধারিতে বইটি পড়েছি। আর আমার চোখের আলোও খুব কম।) দুইটি মুদ্রণপ্রমাদ আছে। বানানভুল আছে বেশ কয়েকটি, পুনরুক্তি ছাড়াই বেশ কয়েকটি; ওগুলো মুদ্রণপ্রমাদ নয়, নিরেট ভুল। ২. কিছু শব্দ আছে ইয়া আফরোজা-য়, যা সাজা ভাইয়ের নিজস্ব শব্দ। কোনো আভিধানিক যোগ এর Read more…

করোনাকালের দিনকাল

নাকে একটা মিহি গন্ধ পাই। তিলের খাজা? নাকি গুড়-বাদামের টানা? গাঢ় হতে হতে মিলিয়ে যায়। ঠিকঠাক ধরতে পারি না। মস্তিষ্কের যে নিউরনগুলো গন্ধ নিরীক্ষণের কাজ করে, তারা খানিক ধন্দে পড়ে যায়—তাদের সংরক্ষিত ডাটাবেজ হাতড়াতে থাকে মিলিসেকেন্ডে। ততক্ষণে গন্ধটা উবে গেছে। আর ধরা যায় না। কখনো মনে হয় শুকনো সাবানের গন্ধ। Read more…

মাতাল নির্বাসন

শিরস্ত্রান ছিনিয়ে নিয়েছে যুদ্ধ-বিজয়ী চিল অশ্বারোহী মেঘ হয়ে পালিয়ে যাচ্ছি দূরে বুকের বর্মে খোদাই করা তোমার ঠিকানা রক্তের স্রোতে মুছে গেছে রানির সিলমোহর হারিয়েছি তলোয়ার, তিরের আঘাত পিঠে আমার সিপাহিরা খুইয়ে এসেছে স্মৃতির সম্ভ্রম পরাজিত মেঘ হয়ে সীমান্তে, ফিরব না আর রাজধানী সেনাপতির জীবন কাটবে এখন মাতাল নির্বাসনে

ইমাম ইবনে তাইমিয়ার ক্ষমা

শাইখুল ইসলাম দরবেশ তকিউদ্দিন ইবনে তাইমিয়া (রহ.) তৎকালীন মিশর ও দামেশকের সুলতান কর্তৃক তিনবার গ্রেফতার হন। তিনবারই তাকে বিভিন্ন মেয়াদে জেল খাটতে হয়। তার অপরাধ ছিল—ভ্রান্ত বিশ্বাসী, বিদআতি ও মাজারপূজারী সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে সত্যভাষণ।  এই সম্প্রদায়ের সঙ্গে তৎকালীন শাসকবর্গের বেশ দহরম মহরম ছিল। তাদের বিরুদ্ধে একের পর এক ইসলামের সত্য উন্মোচনের Read more…

দারিদ্র, তুমি মোরে করিয়াছো ‘মহান’ | শেষ পর্ব

দারিদ্র সবসময় মানুষকে মহান বানায় না, অনেক সময় মানুষকে অধমও করে তোলে। আমি আমার অনেক লেখকবন্ধুকে প্রশ্ন করি, আপনি মৌলিক কিছু লিখছেন না কেন? এভাবে অনুবাদ করে করে তো ইসলামি সাহিত্য বলতে কিছু দাঁড়াবে না। তার সোজাসাপ্টা উত্তর, এমন প্রকাশক কই? আমি ছয় মাস রক্ত-ঘাম ব্যয় করে একটি মৌলিক বই Read more…

পেশাদারিত্বের অভাব | পর্ব ৩

লেখক-অনুবাদক-প্রকাশক—সবার মধ্যে পেশাদারিত্বের অভাব। লেখালেখির ক্ষেত্রে পেশাদারিত্বটা আসলে কী, সেটাই আমরা এখনও বুঝে উঠতে পারিনি। পেশাদারী মনোভাবের অভাবে লেখক-অনুবাদকরা লেখালেখিকে কখনোই সিরিয়াসলি নেন না। তারা মনে করেন, লেখালেখিটা একটা শখের বিষয়। সময়-সুযোগ হলে লিখব, ইচ্ছা না হলে লিখব না। কিন্তু তার স্মরণ রাখা প্রয়োজন, তার কাছে লেখালেখি খাম-খেয়ালির বিষয় হলেও Read more…

শিকড়ে সৃষ্টিশীলতার অভাব | পর্ব ২

মৌলিক রচনার প্রধানতম উপকরণ হচ্ছে সৃষ্টিশীলতা। মৌলিক যেকোনো লেখার জন্য লেখকের অন্দরে আবশ্যিকভাবে একটি সৃষ্টিশীল হৃদয় থাকা বাঞ্চনীয়। এই সৃষ্টিশীল হৃদয় তৈরি হয় শৈশব-কৈশোরে। কিন্তু অতীব দুঃখের বিষয়ই বলতে হবে, আমাদের ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সৃষ্টিশীলতার তেমন কোনো কদরই করা হয় না। কদর না করলেও না হয় কথা ছিল, বরঞ্চ যেকোনো Read more…

ইসলামি প্রকাশনায় মৌলিক বইয়ের সংকট | ১ম পর্ব

আমার মনে হয়, কেবল ইসলামি প্রকাশনাশিল্পে প্রকাশকদের দোষ দেয়াটা অবিবেচক কাজ হবে। এই লেখক নিজে যেহেতু বাংলাবাজারকেন্দ্রিক একটি স্বনামধন্য প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত, গত পাঁচ-ছয় বছর বাংলাবাজার বইপট্টির গলি-ঘুঁপচি সকাল-বিকাল গাশত করে বুঝেছি—মৌলিক লেখার সংকটে প্রকাশকের দোষ অতটা নয় যতটা আমরা বাইরে থেকে মনে করি। মৌলিক বইয়ের সংকটের পেছনে জড়িয়ে Read more…

শায়খ আখি সিরাজুদ্দিন উসমান : ত্রয়োদশ শতকের বিস্মৃত বঙ্গীয় সুফি ও ব্যাকরণবিদ

বঙ্গদেশে ইসলামের আগমন এবং ইসলাম প্রসারে পশ্চিমাঞ্চলীয় (আরব, পারস্য, মধ্যএশিয়া) সুফি আলেম বা বঙ্গীয় সুফি দরবেশদের নাম যেভাবে বিবৃত হয়ে আসছে, সে অনুপাতে ইসলামি শিক্ষায়তন, শিক্ষা-ব্যক্তিত্ব, ইসলামি শিক্ষা প্রসারে অগ্রণী ভূমিকা পালনকারী ব্যক্তিদের বর্ণনা খুব একটা নেই। বিশেষত ত্রয়োদশ শতকের গোড়ায় ইখতিয়ারুদ্দিন মুহাম্মদ ইবনে বখতিয়ার খিলজী বাংলাদেশে আগমনের পর থেকে Read more…

পথে পথে ২

ভাটিয়ারী থেকে হাটহাজারী আসতে আধঘণ্টার মতো লাগল। মাদরাসার পাশে ইশতিয়াক সিদ্দিকীর ডেরা – বাংলাবাড়ি। বাংলাবাড়ি ইশতিয়াক ভাইয়ের একটি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান, যেখানে মাদরাসার ছাত্রদের বাংলা ভাষাজ্ঞান, লেখালেখির কলাকৌশল, সাংবাদিকতার পথ-পদ্ধতি এবং ইত্যকার বিষয়াদি শেখানো হয়। মাদরাসার পশ্চিম পাশের মার্কেটের দোতলায় একটা কামরা নিয়ে চলছে তার বাংলাশিক্ষণ কার্যক্রম। আমরা গিয়ে সেখানে উঠলাম। Read more…